সাধারণত ৪-৫ বছর বয়সেই কায়ান উপজাতী মেয়েদেরকে প্রথম পিতলের কুণ্ডলী পরানো হয়। প্রথমে ১ কিলোগ্রাম ওজনের কুণ্ডলী পরানো হয়, এরপর ধীরে ধীরে ওজন বাড়ানো হয়। ৮ বছর বয়সে দ্বিতীয় কেজি এবং ১২ বছর বয়সে তৃতীয় কেজি কুণ্ডলী যুক্ত করা হয়। এরপরেও যদি গলায় জায়গা থাকে, তাহলে ১৫ বছর বয়সে আরো ২ কেজি ওজনের কুণ্ডলী যোগ […]

Read More


দেখতে রিং বা বলয়ের মতো হলেও মায়ানমারের কায়ান লাহুই গোত্রের সদস্যদের গলায় পরিধান করা ধাতব অলঙ্কারগুলো আসলে পৃথক পৃথক রিং বা বলয় না, বরং পেঁচানো কুণ্ডলী। এগুলো নির্মিত হয় প্রধানত পিতল এবং সামান্য কিছু স্বর্ণের মিশ্রণে তৈরি সংকর ধাতু দ্বারা। কুণ্ডলীর এক পাকের ওজন ২৫০ থেকে ৪০০ গ্রাম পর্যন্ত হতে পারে।

Read More


মায়ানমারে অবস্থিত কায়ান লাহুই উপজাতীরা স্থানীয়ভাবে পাদাউং নামেও পরিচিত। স্থানীয় ‘শান’ ভাষায় পাদাউং শব্দটির অর্থ লম্বা গলা। রিং পরিহিত অবস্থায় এদের গলা ১ ফুট বা তার চেয়েও বেশি লম্বা মনে হতে পারে।

Read More


একটা সময় মায়ানমারের প্রায় প্রতিটি কায়ান লাহুই পরিবারের অন্তত একটি করে মেয়ে রিং পরিধান করে গলা লম্বা করার ঐতিহ্য বজায় রাখতো।

Read More


মায়ানমারের কায়াহ উপজাতি নারীদের গলা অনেকটা লম্বা বলে এদের পরিচয় ‘লম্বা গলা বিশিষ্ট নারী’ বা ‘জিরাফ নারী’ হিসেবে।জিরাফ নারীরা প্রধানত মায়ানমারের কায়ান লাহুই গোত্রের সদস্য।

Read More


Reinhold Messner নামক ইতালিয়ান নাগরিক মোট ৩ বার Nanga Parbat পর্বত জয় করেছেন। প্রথমবারে তিনি তার ভাইকে এবং frostbite এর কারনে পায়ের ৬টি আঙ্গুল হারান, দ্বিতীয়বারে সর্বপ্রথম ব্যাক্তি হিসেবে একা একা পর্বতটি জয় করেন এবং তৃতীয়বার জয় করেছিলেন ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধারের জন্য।

Read More


Reinhold Messner নামক ইতালিয়ান নাগরিক mountaineer, adventurer এবং explorer হিসেবে খুবই বিশ্ববিখ্যাত। তিনি হচ্ছেন সর্বপ্রথম ব্যাক্তি যিনি ৮,০০০ মিটারের বেশি উচ্চতার সকল পর্বত জয় করেছেন এবং তিনি তা করেছেন অক্সিজেন ট্যাঙ্ক ছাড়া !

Read More


যখন অসুস্থতা বা বয়সের কারনে রানী মৌমাছি নেতৃত্ব প্রদানের জন্য অযোগ্য মনে করা হয় তখন রানী মৌমাছির চারপাশে অন্যান্য মৌমাছিরা গুচ্ছ/cluster তৈরি করে রাখে যতক্ষণ না পর্যন্ত রানী মৌমাছি অতিরিক্ত উত্তাপের কারনে মারা যায়। বিষয়টি Cuddle Death (মৃত্যু আলিঙ্গন) নামে পরিচিত

Read More


খাবার খাওয়ারত অবস্থায় কারোর দিকে তাকিয়ে থাকা এবং আশা করা যে হয়ত তাকেও খাবারটি খেতে দিবে, এরূপ আচরনের একটি নাম আছে- Groak

Read More


জাপানী মায়েরা মনে করেন, জন্মের পর নবজাতকের কাটা নাড়ি যতো যত্নে রাখা হবে, পরবর্তীতে মা ও সন্তানের সম্পর্ক ততো ভালো হবে, মায়ের সাথে সন্তানের বন্ধন তত মজবুত হবে। এই বিশ্বাস থেকেই তারা সন্তানের জন্মের পর তার কাটা নাড়ি অত্যন্ত যত্নের সাথে একটি কাঠের বাক্সে সংরক্ষণ করে এবং সারাজীবন তা খুবই যত্নের সাথে রেখে দেয়।

Read More