আপনি জানেন কি? – ২৩৯৩

আটলান্টিক মহাসাগরের মাঝখানের দ্বীপ সেন্ট হেলেনা এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে দুর্গম স্থানগুলোর একটি। ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরো থেকে ৪ হাজার কিলোমিটার পূর্বে এবং আফ্রিকার কুনেনে নদী থেকে ১ হাজার ৯৫০ কিলোমিটার পশ্চিমে দক্ষিণ আটলান্টিক মহাসাগরে ১২২ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এ দ্বীপে ৪ হাজার ২৫৫ লোকের বসবাস।


আপনি জানেন কি? – ২৩৫৩

‘বিংহাম ক্যানিয়ন মাইন যা কিনা স্থানীয় অধিবাসীদের নিকট কেনেকট কপার মাইন নামে পরিচিত, একটি অতি পুরাতন তামার খনি যা যুক্তরাষ্ট্রের উতাহ প্রদেশের সল্ট লেক শহরের দক্ষিণ-পূর্বে ওকোয়া পর্বতশ্রেণীতে অবস্থিত। এটি পৃথিবীর বুকে মানুষের দ্বারা খোঁড়া গভীরতম গর্ত।


আপনি জানেন কি? – ২৩৩৪

চুকিকামাহ হচ্ছে দক্ষিণ চিলির কালামা প্রদেশের নিকট অবস্থিত একটি তামা উত্তোলনের খনি যাকে বলা হয় পৃথিবীতে মানুষের সৃষ্ট সর্ববৃহৎ আয়তনের গর্ত। এটি চুকি/চুকুই নামে অধিক পরিচিত।


আপনি জানেন কি? – ২৩৩৩

দক্ষিণ আফ্রিকার উত্তরাঞ্চলীয় অন্তরীপের কিম্বারলিতে অবস্থিত কিম্বারলি হীরক খনিকে বলা হয় পৃথিবীতে মানুষের হাতে খোঁড়া গভীরতম এবং বৃহত্তম গর্ত। অবিশ্বাস্য হলেও সত্য ৪২ একর জায়গা জুড়ে অবস্থি ৪৬৩ মিটার প্রশস্ত এই খনিটি সম্পূর্ণই মানুষের হাতে খোঁড়া।


আপনি জানেন কি? – ২৩৩২

আরবদের নিকট একটি হ্রদটি তার বিশালতার কারণে সাগর হিসেবে পরিচিত ছিল। হ্রদেটির নাম আরাল সাগর। ১৯৬০ সালের দিকে আরাল সাগর পৃথিবীর বুকে ৪র্থ বৃহত্তম হ্রদ ছিলো।


আপনি জানেন কি? – ২২৯৩

কানাডায় একটি শহর আছে যেই শহরে মাত্র ৪জন মানুষ বাস করে।শহরটির নাম টিল্ট কোভ। মাত্র ৪জন বাস করা সত্ত্বেও এই শহরে সব নাগরিক সুবিধাই আছে।


আপনি জানেন কি? – ২২৮০

ইতালিতে অবস্থিত সেলিয়া শহরটিতে বড় জোর ৫৩৭ জনের বাস করে এবং সবারই বয়স ৬৫-এর কাছাকাছি। সরকারের নিয়মানুসারে এখানে রোগাক্রান্ত হওয়া চলবে না এবং রোগে ভুগে মৃত্যু তো একেবারে বেআইনি। এই শহরের বাসিন্দাদের বছরে একবার ফুল বডি চেকআপ করতেই হবে। আর যদি কেউ এমনটা না করেন তাহলে ১০ ইউরো পর্যন্ত ফাইন করা হয়ে থাকে।


আপনি জানেন কি? – ২২৭৯

পাহাড়-পর্বতে ঘেরা ফ্রান্সের লা-ল্যাভেনডিউ শহরটির সরকার সমুদ্রের ধারে কবরস্থান বানাতে নিষেধ করেছে এবং পুরনো কবরস্থানে আর জায়গা নেই। তাই তিনি একটি আইন জারি করেছেন, তাতে বলা হয়েছে অন্য কোনও দেশ থেকে কেউ এই শহরে বেরাতে এসে যদি মারা যান, তাহলে তার মৃতদেহ তার দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ভুলেও লা-ল্যাভেনভিউ শহরে তাকে কবর দেওয়া চলবে না।


আপনি জানেন কি? – ২২৭৪

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে মোড়া জাপানের ইটসুকুসিমা দ্বীপটিকে সেখানকার বাসিন্দারা  পবিত্র বলে মনে করেন। তাই এ জায়গায় কারও মৃত্যু হোক এমনটা তারা চান না। সেই কারণেই তো ১৮৭৮ সাল থেকে নিয়ম করে মৃত্যুর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সেখানকার সরকার।


আপনি জানেন কি? – ২২৭৩

প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত সামোয়া নামের দ্বীপরাজ্যটি নিউজিল্যান্ড থেকে স্বাধীনতা ঘোষণা করে ১৯৬২ সালে৷ সে যাবৎ দেশটির কোনো সামরিক বাহিনী নেই৷ নিউজিল্যান্ড প্রয়োজনে দেশটির প্রতিরক্ষার জন্য সামরিকভাবে হস্তক্ষেপ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ৷