আপনি জানেন কি? – ১৮০৮

পৃথিবীতে হীরা অত্যান্ত মূল্যবান এবং  দুষ্প্রাপ্য বস্তু হলেও সৌর মন্ডলের সবচেয়ে বড় গ্রহ বৃহস্পতিতে হীরার বৃস্টি হয়।


আপনি জানেন কি? – ১৭৩১

আমরা আকাশের দিকে তাকালে সবসময় আকাশকে  নীল দেখি। আসলে আকাশ বর্নহীন হলেও নীল আলোর বিক্ষেপণ অন্য যে কোন রঙের চেয়ে অপেক্ষাকৃত বেশি হওয়ায় আকাশকে নীল দেখায়।


আপনি জানেন কি? – ১৭২৮

পৃথিবীকে প্রদক্ষিন করতে সুর্যের কত সময় লাগে? যদি সেকেন্ডের হিসাব করা হয় তাহলে ৩১,৫৫৭,৬০০ সেকেন্ডে সুর্য পৃথিবীকে একবার প্রদক্ষিন করে অর্থাৎ ৩১,৫৫৭,৬০০ সেকেন্ডে এক বছর হয়।


আপনি জানেন কি? – ১৫৫৬

স্পেসস্যুট এর রঙ সাদা হয়, কারণ সাদা রঙ সূর্যের তাপ প্রতিফলিত করে এবং এটির কারনে মহাকাশচারীদের শরীর স্বাভাবিকের বেশী উত্তপ্ত হয় না।


আপনি জানেন কি? – ১৫৫৪

সূর্য আকারে চাঁদের চেয়ে প্রায় ৪০০ গুণ বড় এবং সূর্যগ্রহণের সময় পৃথিবী থেকে সূর্যের দূরত্ব দাঁড়ায় পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্বের ৪০০ গুণ। একারণে এসময় আকাশে চাঁদ ও সূর্যকে সমান আকারে দেখা যায় এবং পৃথিবীতে পূর্ণ সূর্য গ্রহণের কারণও এটাই।


আপনি জানেন কি? – ১৫৫২

পৃথিবী হচ্ছে সৌরজগতের একমাত্র স্থান, যেখানে পানি তার ৩ টি অবস্থাতেই (কঠিন, তরল, বায়বীয়) থাকতে পারে। এখন পর্যন্ত আর কোথাও এই অবস্থা দেখা যায়নি।


আপনি জানেন কি? – ১৫৫১

সূর্যের মোট ভর, আমাদের পুরো সৌর জগতের ভরের ৯৯.৮৬%। এর প্রায় চার ভাগের ৩ ভাগ ই শুধুমাত্র হাইড্রোজেন দিয়ে পরিপূর্ণ।


আপনি জানেন কি? – ১৫৫০

পৃথিবী যেমন সূর্যকে কেন্দ্র করে প্রদক্ষিণ করে, ঠিক তেমনি ভাবে আমাদের সৌরজগত মিল্কিওয়ে ছায়াপথ কে প্রদক্ষিণ করে থাকে। আর এই ছায়াপথকে প্রদক্ষিণ করতে আমাদের সৌরজগতের সময় লাগে ২৪০ মিলিয়ন বছর।