প্রতি বছরই জঙ্গল সম্পর্কে নতুন নতুন বিস্ময় আবিষ্কৃত হচ্ছে। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে যে, জঙ্গলের বৃক্ষগুলো একে অপরের সাথে সংযোগ বজায় রাখে।

Read More


মরিচে যে উপাদানের জন্য ঝাল লাগে তার নাম হলো ক্যাপসেসিন। ক্যাপসেসিন কাজ করে অনেকটা স্নায়ুবিষের মতো। মানে এটা সত্যি সত্যি টিসু জ্বালায় বা পোড়ায় না। বরং আমাদের জিভে থাকা স্নায়ুতন্ত্রকে আক্রান্ত করে এবং আমাদের জ্বালাপোড়া করার মিথ্যা অনুভূতি দেয়।

Read More


মরিচের সবচেয়ে ঝাল অংশ হলো বীজবাহী গর্ভপত্র। অর্থাৎ, যে মাংসল অংশের মধ্যে বীজগুলো ঝুলে থাকে।

Read More


আজ থেকে প্রায় ৬ হাজার বছর আগে মেক্সিকো ও পেরুতে প্রথম মরিচের বীজ পাওয়া যায়।

Read More


শুধু স্তন্যপায়ী প্রাণীরাই যেমন মানুষ, মহিষ, ভেড়া ইত্যাদি মরিচের ঝাল অনুভব করে। তবে কোনো পাখি মরিচের ঝাল বুঝতে পারে না।

Read More


তাইগা বনে এতো পরিমাণ গাছ আছে যে তা থেকে উৎপন্ন অক্সিজেনের ব্যাপক প্রভাব রয়েছে পুরো পৃথিবীর বায়ুমন্ডলের উপর।

Read More


তাইগা বনের আবহাওয়া এতোই চরমভাবাপন্ন যে গাছগুলো বছরে মাত্র এক মাস বড় হবার সুযোগ পায়। ফলে, চারা থেকে পূর্ণাঙ্গ অবস্থায় পৌঁছাতে এদের প্রায় ৫০ বছরের মতো সময় লেগে যায়।

Read More


তাইগা বন উত্তর মেরুর চারপাশে গাছের একটি বৃত্ত তৈরী করে রেখেছে এবং পৃথিবীর মোট গাছের তিন ভাগের এক ভাগ গাছ এই বনে অবস্থিত।

Read More


উত্তর মেরুর তাইগা বনে যতগুলো কনিফেরাস গাছ আছে পুরো পৃথিবীর সব রেইনফরেষ্ট মিলেও ততগুলো গাছ নাই।

Read More


পৃথিবীর সবচেয়ে বড় কনিফেরাস জাতীয় গাছের ভান্ডার রয়েছে উত্তর মেরুতে অবস্থিত বিশ্বখ্যাত তাইগা ফরেষ্টে।

Read More