১৮১৪ সালে ব্রিটিশ সৈন্যরা হোয়াইট হাউসে আগুন লাগিয়ে দেয়। আগুনে ভবনের অভ্যন্তরের অংশ ও ছাদ পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যায়। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই এর পুনর্নির্মাণ আরম্ভ হয়।

Read More


যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট জন অ্যাডামস সর্বপ্রথম ১৮০০ সালে সপরিবারে হোয়াইট হাউসে বসবাস শুরু করেন। তখন হোয়াইট হাউসের নির্মাণ কাজ মোটামুটি শেষ পর্যায়ে ছিল।

Read More


১৭৯২ সালের অক্টোবরে হোয়াইট হাউসের নির্মাণ কাজ শুরু হয় এবং নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার আগেই ১৭৯৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের জাতির জনক ও প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের মেয়াদ শেষ হয়। তিনি ১৭৯৯ সালে মারা যাবার ফলে তার আর হোয়াইট হাউসে থাকা হয়ে উঠে নি।

Read More


যুক্তরাষ্ট্রের জাতির জনক ও প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটন কখনোই হোয়াইট হাউসে থাকার সুযোগ পাননি। অথচ ১৭৯১ সালে তিনিই হোয়াইট হাউসের মূল নকশা অনুমোদন করেন।

Read More


কায়ানদের বিশ্বাস অনুযায়ী, তারা ড্রাগনের বংশধর। তারা মনে করে, অতীতে কোনো এক সময় এক নারী ড্রাগনের সাথে স্বর্গীয় দূতের মিলনের ফলে তাদের বংশের আদি পুরুষদের জন্ম হয়েছে। অনেকের মতে, সেই লম্বা গলা বিশিষ্ট আদি মাতা ড্রাগনের সম্মানার্থেই কায়ান নারীদের মধ্যে গলা লম্বা করার সংস্কৃতির প্রচলন হয়েছিল।

Read More


গিনেজ বুক অফ ওয়ার্ল্ড অনুযায়ী, বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা গলার নারী একজন কায়ান, যার গলার দৈর্ঘ্য ১৫.৭৫ ইঞ্চি।

Read More


কায়ানদের অধিকাংশ প্রাপ্তবয়স্ক নারী গলায় যে ধাতব অলঙ্কারগুলো পরিধান করে সেই কুণ্ডলীর ওজন ৫ কেজি হয়ে থাকে। তবে ১০ কেজি ওজনের কুণ্ডলী দেখা যায়।

Read More


কায়ানদের গলায় পরিধান করা ধাতব অলঙ্কারগুলো কায়ানদের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতির পাশাপাশি নারীদের সৌন্দর্য, তাদের পরিবারের সামাজিক মর্যাদা এবং বিত্ত-বৈভবের পরিচয়ও বহন করে।

Read More


সাধারণত ৪-৫ বছর বয়সেই কায়ান উপজাতী মেয়েদেরকে প্রথম পিতলের কুণ্ডলী পরানো হয়। প্রথমে ১ কিলোগ্রাম ওজনের কুণ্ডলী পরানো হয়, এরপর ধীরে ধীরে ওজন বাড়ানো হয়। ৮ বছর বয়সে দ্বিতীয় কেজি এবং ১২ বছর বয়সে তৃতীয় কেজি কুণ্ডলী যুক্ত করা হয়। এরপরেও যদি গলায় জায়গা থাকে, তাহলে ১৫ বছর বয়সে আরো ২ কেজি ওজনের কুণ্ডলী যোগ […]

Read More


দেখতে রিং বা বলয়ের মতো হলেও মায়ানমারের কায়ান লাহুই গোত্রের সদস্যদের গলায় পরিধান করা ধাতব অলঙ্কারগুলো আসলে পৃথক পৃথক রিং বা বলয় না, বরং পেঁচানো কুণ্ডলী। এগুলো নির্মিত হয় প্রধানত পিতল এবং সামান্য কিছু স্বর্ণের মিশ্রণে তৈরি সংকর ধাতু দ্বারা। কুণ্ডলীর এক পাকের ওজন ২৫০ থেকে ৪০০ গ্রাম পর্যন্ত হতে পারে।

Read More